ব্রাউজের ক্যাটাগরি

কর্মজীবন

আচরণগত সমস্যা, কর্মজীবন

যে ১২টি কাজ আপনার চাকরি পাওয়ার পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে

অনেক বড় বড় ডিগ্রী থাকা সত্ত্বেও চাকরি না হওয়া আজকাল খুব একটা ব্যতিক্রমী কিছু না। কিন্তু কেন এরকম হচ্ছে ভেবে দেখেছেন কি? ইন্টার্ভিউ বোর্ডে যারা থাকেন তাদের সাথে তো আর আপনার শত্রুতা নেই। তাহলে কেন এরকম হবে? চলুন জেনে নেই- পড়তে থাকুন

আচরণগত সমস্যা, কর্মজীবন, কারণ ও প্রতিকার, জীবনযাত্রা, বিষেশজ্ঞ মতামত, স্বাস্থ্য সমস্যা

সারা দিন বসে বসে কাজ করতে হয়? সতর্ক হোন এখনি

স্কুল-কলেজ, বাসা বা অফিস প্রতিনিয়ত আমরা বসেই থাকি। যুগের আধুনিকায়নের ফলে আমাদের শারীরিক পরিশ্রম অনেক কমে গেছে। বসে বসে কাজ করা সম্ভব হলে কে বা দাঁড়িয়ে করতে চাইবে?

কিন্তু সারা দিন বসে থাকায় কষ্ট কম হলেও শরীর অনেক খারাপ হয়ে পড়ে। যার ফলে এযুগে মানুষের অসুখের সীমা থাকে না। চলুন তাহলে সারা দিন বসে বসে কাজ করার ক্ষতিকারক দিক এবং এর থেকে বাঁচার উপায় জেনে নিই- পড়তে থাকুন

কর্মজীবন, জীবনযাত্রা

চাকরি পাওয়ার ৬টি মূলমন্ত্র

এসএসসি, এইচএসসি, অনার্স, মাস্টার্স সব ক্ষেত্রেই A+ পাওয়ার পরও চাকরি পাচ্ছেন না এমন মানুষের অভাব বাংলাদেশে নেই। চাকরির বাজার মন্দ হলেও এতো ভালো রেজাল্ট করার পর একটা চাকরি তো অন্তত পাওয়া উচিৎ। তাহলে কেনো চাকরি হচ্ছে না?

উত্তরটা হয়তো অনেকেরই অজানা। তাহলে চলুন জেনে নেই- পড়তে থাকুন

কর্মজীবন

অফিসে যে কাজগুলি কখনোই করবেন না

১৫-২০ বছর ধরে অফিসে কাজ করে চলেছেন অথচ প্রোমোশন একটিও পান নাই এমন মানুষ খুঁজলেই দুই একটা মিলে যাবে। কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন এরকম কেনো হচ্ছে?

কাজ তো নিয়মিত করে দিচ্ছেন তার পরেও কেনো প্রোমোশন হচ্ছে না? অফিসে শুধু আপনার কাজের উপরেই লক্ষ্য করা হয় না, আরও অনেক বিষয় থাকে। জীবনে সফল হতে গেলে এইসব বিষয় মাথায় রেখে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। পড়তে থাকুন

কর্মজীবন

কর্মজীবনে উন্নতির মূলে থাকবে পেশাদারিত্ব

কর্মক্ষেত্রে উন্নতি হচ্ছে না দেখে মানুষের হতাশার যেন কোনো কমতি নেই, অথচ শুধুমাত্র একটি অভ্যাস রপ্ত করে আপনিও হতে পারেন সফল। সেটা হলো পেশাদারিত্ব ।

চাকরি হোক বা ব্যবসা, কর্মজীবনে উন্নতি করতে চাইলে আপনার মধ্যে পেশাদারিত্ব থাকা আবশ্যক। চলুন তবে এটি সম্বন্ধে বিস্তারিত জেনে নেই- পড়তে থাকুন

ওজন নিয়ন্ত্রণ, কর্মজীবন, জীবনযাত্রা, ফিটনেস

কাজের মাঝেও যে ব্যায়ামগুলো করতে পারবেন

“-এই রে! ৮টা বেজে গেছে। তাড়াতাড়ি নাস্তা দাও। অফিসে যেতে হবে।
-আজকে ব্যায়াম করবে না?
-আজকে না। দেরী হলে বসের ধমক খেতে হবে। কাল থেকে নিয়মিত করবো।”

প্রতিদিন এভাবেই চলতে থাকে। কাল যেন আর আসেই না। এতো ব্যায়াম-ট্যায়াম করার সময় কই?

পড়তে থাকুন

কর্মজীবন, জীবনযাত্রা

দৈনিক ৫ মিনিট হলেও ব্যায়াম করুন!

“আজ অফিসে অনেক কাজ ছিল, আজকে আর ব্যায়াম না করি”; “উফফ! এত্তো পড়ার চাপ, আজকে থাক, কালকে থেকে ব্যায়াম করবো”; “সংসারের এতো কাজের মধ্যে ব্যায়াম করার টাইম কই?” ইত্যাদি নানা ধরনের অজুহাত দেখিয়ে আমরা প্রতিদিনই ব্যায়াম করা থেকে মুক্তি পেতে চাই।

কিন্তু এই ফাঁকি আমরা কাকে দিচ্ছি? যারাই এই ধরনের অজুহাত দিয়েছেন আজ তারা সবাই কম বেশি স্থূলতার শিকার। হয়তোবা শুনে অবাক হবেন যে, প্রতিদিন মাত্র ৫ মিনিট ব্যায়াম করে আপনারা এই স্থূলতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। পড়তে থাকুন