সামাজিক সচেতনতা, সাম্প্রতিক

হাঁচি-কাশি বয়ে আনবে আরও ১০টি রোগ

আমাদের বড় একটা বদ অভ্যাস আছে, যে রোগে মৃত্যুর ঝুঁকি বা বড় কোনো বিপদের সম্ভাবনা থাকেনা সেটাকে আমরা সব সময় তাচ্ছিল্লের সাথে দেখি। এমনই এক সমস্যা হাঁচি-কাশি। শীতকাল আসার এই ঋতু পরিবর্তনের সময় হাঁচি-কাশি লেগেই থাকে।

যেহেতু বড় কোনো সমস্যা হয় না তাই আমরা এর প্রতি তেমন নজরও দেই না। কিন্তু এই রোগটিই পরবর্তীতে আরও অনেক রোগ বয়ে আনে। চলুন সেই রোগগুলো সম্বন্ধে জেনে নেই-

প্রথমে চলুন জেনে নেই হাঁচি-কাশি কীভাবে ছড়ায়?

আমরা যখন হাঁচি বা কাশি দেই তখন আমাদের মুখের থেকে জীবাণু বাতাসে ছড়িয়ে পড়ে। সেই বাতাসে যে বা যারাই শ্বাস গ্রহণ করবে তারা ওই জীবাণুর সংক্রমণে চলে আসবে।

জনবহুল স্থানে নাক-মুখ না ঢেকে হাঁচি-কাশি দিলে সেই জীবাণু সংক্রমিত হয় ও আপনার আশেপাশের মানুষকে আক্রান্ত করে।

ঠিক একই ভাবে, আপনার নিকটস্থ মানুষটি যখন অসতর্কতাবশত নাক মুখ না ঢেকে হাঁচি-কাশি দেয়, সেই জীবাণু দ্বারা আপনি আক্রান্ত হতে পারেন। হাঁচি বা কাশির মাধ্যমে জীবাণু সংক্রমিত হওয়াকে ড্রপলেট ইনফেকশন বলে।

কীভাবে সতর্ক থাকবেন?

হাঁচি-কাশি দেয়ার সময় রুমাল বা টিস্যু দিয়ে নাক মুখ ঢেকে রাখুন। সাথে রুমাল বা টিস্যু না থাকলে হাত দিয়ে ঢাকুন। পরক্ষণেই হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

ড্রপলেট ইনফেকশনের মাধ্যমে কোন কোন রোগ ছড়ায়?

১। শ্বাসতন্ত্রের ইনফেকশন

২। সর্দি-কাশি

৩। ফ্লু

৪। মেনিনজাইটিস

৫। লেপরোসি

৬। নিউমোনিক প্লেগ

৭। রুবেলা

৮। সারস্‌

৯। স্ট্রেপ থ্রোট

১০। যক্ষ্মা

১১। হুপিং কাশি ইত্যাদি।

আপনার কয়েক সেকেন্ডের অসাবধানতার কারণে আপনার চারপাশের মানুষ মারাত্মক ভাবে রোগাক্রান্ত হতে পারে। হাঁচি-কাশি দেয়ার সময় সতর্ক থাকুন; নিজে সচেতন হোন, অন্যদেরও সচেতন করুন।

 

*আমাদের সকল লেখা বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা নিরীক্ষিত*

স্বাস্থ্য সম্পর্কিত যে কোনো সমস্যা, রোগ নির্ণয় এবং ডায়েট প্লান তৈরি করতে ডাউনলোড করুন Rx71 Health App

আপনাদের সুবিধার্থে লিংক দেওয়া হলো http://bit.ly/2aStSKw

 

 

Comments

comments

পূর্ববর্তী পোস্ট পরবর্তী পোস্ট

আপনি হয়ত এগুলো পছন্দ করতে পারেন